প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি

নাজমুল হোসেন, নিজস্ব প্রতিবেদক :

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটে।  

শুক্রবার (১ মার্চ) দিনগত রাতে উপজেলার দক্ষিণ নারায়ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে থাকে।

এর পূর্বেও কয়েকবার দক্ষিণ নারায়ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটে বলে জানান বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা।  

শনিবার (২ মার্চ) সকালের দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশ।

এলাকায় মাদকসেবিদের উৎপাত বেড়ে যাওয়ায় এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।  

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুরাইয়া বেগম বলেন, শুক্রবার রাতে চুরির পর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রয়োজনীয় সব ফাইল এলোমেলো করে রেখেছে চোরেরা।

যাওয়ার সময় অফিস কক্ষের ছোট-বড় প্রয়োজনীয় সব জিনিস পত্র নিয়ে গেছে। স্কুলের বেল পর্যন্ত নিয়ে যায় চোরেরা।

এর পূর্বেও কয়েক দফায় চুরি করে এই স্কুল থেকে সরকারি ল্যাপটপ, ফ্যান, সোলারের ব্যাটারিসহ অনেক কিছু নিয়ে যায়। এবারসহ মোট পাঁচবার চুরির ঘটনা ঘটে এ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। বারবার চুরির কারণে স্কুলে আর কিছুই রহিলো না।

প্রাথমিক বিদল্যায়ের প্রধান শিক্ষক আরও জানান, বারবার চুরির ঘটনা ঘটছে। এর কোনো সমাধান পাচ্ছি না। বিষয়টি থানায়ও জানিয়েছি কয়েকবার।  

অত্র দক্ষিণ নারায়ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আরও বলেন, দক্ষিণ নারায়ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নৈশপ্রহরী নিয়োগ হয়নি। নৈশপ্রহরী না থাকার চোর চক্র নিশ্চিন্তে চুরি করে যাচ্ছে একেরপর এক।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বলেন, চুরির ঘটনায় কয়েকবার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। এলাকার জনপ্রতিনিধিদের জানানো হয়েছে। তবে কোনো লাভ হচ্ছে না। এ নিয়ে যেন কারও মাথা ব্যথা নেই। রাতে এলাকার পাহারায় চৌকিদার থাকলেও চুরি থামছে না। কয়েকদিন আগে আশপাশের কয়েকটি বিদ্যালয়েও চুরির ঘটনা ঘটেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় লোকজন জানায়, এলাকার মাদকবিক্রেতা ও সেবনকারীদের উৎপাত বেড়ে চলছে। তারা এসব করে বেড়াচ্ছে। আশপাশের আরও কয়েকটি বিদ্যালয়েও তারা চুরি করেছে। আর মাদকের টাকার যোগান দিতে এসব চুরি করছে।  

রামগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামীম বলেন, আমরা ওই বিদ্যালয় পরিদর্শন করে চুরির ঘটনাটি দেখে এসেছি।

এ বিষয়ে রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *