কমলনগর কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসাটি দ্বীনের আলো ছড়িয়ে যাচ্ছে

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি :

দ্বীনি প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশে কাওমী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো বরাবরের মতো আস্থা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ তাঁদের প্রাণ প্রিয় সন্তানদের কে কুরআনের শিক্ষায় আলোকিত করতে কাওমী মাদ্রাসায় পাঠান।লক্ষ্মীপুর জেলার কমলনগরে এমন ই একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম কড় ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা।

সাত জন সূযোগ্য শিক্ষক ও ২০০ জনের অধিক শিক্ষার্থী নিয়ে চলছে মাদ্রাসাটির পাঠদান কার্যক্রম। মাদ্রাসাটির সূযোগ্য সভাপতি মোঃ আরিফ কোম্পানি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে উক্ত মাদ্রাসার পরিচালনা ও সার্বিক বিষয়ে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি বিগত সময়ে ব্যক্তিগত ভাবে বিভিন্ন দান অনুদান দিয়ে আসছেন। বাংলা, গণিত, ইংরেজি অর্থাৎ আধুনিক ও ধর্মীয় শিক্ষার সমন্বয়ে চলছে মাদ্রাসার পাঠদান কার্যক্রম।বিভিন্ন অভিভাবকদের সাথে কথা বললে তাঁরা মাদ্রাসাটির ব্যাপক প্রশংসা করেন।১৯৯১ সাল থেকে প্রায় ৩৫ বছর ধরে দীর্ঘ সময় ধরে অত্যন্ত গুরুত্ব ও প্রশংসার সাথে এই দ্বীনি প্রতিষ্ঠানটি এগিয়ে চলছে।

নাজেরা,হিফয, নূরানী, কিতাবখানা ও মহিলা বিভাগের দক্ষ পরিচালনার মাধ্যমে কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা টি ইতিমধ্যে কমলনগর উপজেলা ও লক্ষ্মীপুর জেলা ছাড়িয়ে বিভিন্ন অঞ্চলে প্রশংসিত হয়েছে।শিশু জমাত থেকে সপ্তম জমাত পর্যন্ত পাঠদান পরিচালনা করাতে অভিভাবকগন নিশ্চিন্তে তাঁদের সন্তানদের কে মানুষ বানাতে এই প্রতিষ্ঠান টি পছন্দ করে নিয়েছেন।

স্থানীয় লোকজন বলেন, ১৯৯১ সাল থেকে কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা টি সুনামের সাথে পাঠদান কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।পার্শ্ববর্তী প্রতিবেশী লোকজন মাদ্রাসাটিতে সকলের মাধ্যমে অনুদান বাড়াতে উাদাত্ব আহবান জানান।

মাদ্রাসার মুহতামীম মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ জানান বিভিন্ন দান অনুদানের ভিত্তিতে মাদ্রাসাটি পরিচালিত হয়ে আসছে।এখন ভবন নির্মাণের কাজ চলছে। তিনি নতুন ভবন নির্মাণের কাজে মুক্ত হস্তে সাহায্য করতে সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান।হাজির হাট ইসলামী ব্যাংক শাখায় কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা টির একাউন্ট নাম্বার ১০৬৭৩ মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সকল স্বচ্ছল ও ধনাঢ্যদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন দেশী বিদেশী সরকারি ও বেসরকারি সকল ধরনের সহযোগিতা একান্ত কাম্য।সহযোগিতা পেলে আমরা প্রিয় মাদ্রাসাটির কাজ আরো বেশী এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো।তিনি সকলের দোয়া কামনা করেন।

কমলনগর উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন বাপ্পি বলেন দ্বীনি শিক্ষা প্রসারে কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা টি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখে চলছে। আমি উক্ত মাদ্রাসাটির জন্য শুভকামনা করছি।সমাজের বিত্তবানদের কে উক্ত মাদ্রাসায় সহযোগিতা করার জন্য তিনি অনুরোধ জানান।

কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবু তাহের বলেন মাদ্রাসার কথা শুনেছি, আমি সহযোগিতা করবো।অন্যান্যদের কে ও বলবো আপনারা ও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন।

কড়ইতলা ইসলামী কাওমী মাদ্রাসা ও এতিম খানা থেকে প্রত্যেক বছর ৭/১০ জন ছাত্র হিফয সমপন্ন করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দ্বীনি খেদমত করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *