হাইমচরে আগুন নামে আলামিন বাহানীর হামলার শিকার ফরিদগঞ্জ চর দুঃখিয়া বিশকাটালির নিরীহ জনগনঃ

মোঃ শফিক তপাদার, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার বিশকাটালি গ্রামের ভুইয়া বাড়িতে দফায় দফায় আলামিন বাহিনী সংঘবদ্ধ দলের অংশ গ্রহণে একটি বসতবাড়ীতে হামলা ও লুটপাটের এবং কয়েকটি যায়গায় আগুন লাগিয়ে দেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান ফরিদগঞ্জ থানার এস আই সেলিম তার পরেও পুলিশ কে তোয়াক্কা না করে দফায় দফায় হামলা ও ঘর বাড়ি ভাংচুর করে ও আগুন লাগিয়ে দেয়।

রবিবার ৩১ জুলাই বিকেলে উপজেলার চর দুঃখিয়া পশ্চিম ১২ নং ইউনিয়নের বিশকাটালী ভূঁইয়া বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় দোচালা একটিঘর ভাঙচুরেরপর বসতবিল্ডিং এ প্রবেশ করে নগদ দু’লাখ টাকাসহ মালামাল লুটপাট করে নেয়ার অভিযোগ করেছেন ভুক্তোভোগী।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দুপুরে ভুক্তভোগীর ছেলে তানজিল’র সাথে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ওইদিন বিকেলে ১৫-২০ জনের একটি দল হাতে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ভুক্তভোগীদের বাড়িতে প্রবেশেরপর আতঙ্ক সৃষ্টি করে একটি দোচালা টিনের ঘর ভাঙচুর করে, এসময় তাদের বাধাদিতে আসলে ভুক্তভোগীর ছেলে তানজিলকে তারা মারধর করে। এ সময় ছেলেকে বাঁচাতে এসে ভূক্তভোগীর স্ত্রীও মারধরের শিকার হয়। পড়ে ওই সন্ত্রাসীরা ভুক্তভোগীর বসতবিল্ডিং-এ প্রবেশ করে সকল রোমের বিভিন্ন আসবাবপত্র লুটপাট করে ঘরে থাকা নগদ দু’লক্ষ টাকা নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী ইমান হোসেন (৪৫) জানান, আমাদের পাশ্ববর্তি এলাকার হাওলাদার বাড়ীর আল-আমিন ও রাব্বির নের্তৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমার বসতঘরে এসে লুটপাট করে নগদ দুই লাখ টাকা নিয়ে যায়। এসময় তাদের বাধা দিতে আসলে আমার দোচালা একটি টিনেরঘর ভাঙচুর করে আতঙ্ক সৃষ্টি করে তারা আমার স্ত্রী ও ছেলেদের মারধর করে। তাদের হাত থেকে রক্ষপেতে আমরা জরুরী সেবা ৯৯৯ এ কলদিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। আপনার ঘরে নগদ দুই লাখ টাকা কিভাবে আসলো এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমার ছেলে বিদেশে গমনের জন্য এনজিও থেকে সম্প্রতি সময়ে টাকা লোন নিয়েছি। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

ভুক্তভোগীর ছেলে তানজিল হোসেন বলেন, আল আমিন আমাকে তার সাথে থেকে মাদক বিক্রির অপার করে, এতে আমি রাজী হইনি তাই তাদের সাথে আমার কথা কাটাকাটি হয়েছে। কিছুক্ষনপর আল-আমিনের নের্তৃত্বে সন্ত্রাসীরা এসে আমাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটায়।

এদিকে একাধিক বার চেষ্টা করেও অভিযুক্তদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ খবর পেয়ে সন্ধ্যার দিকে ফরিদগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক এসআই সেলিম হোসেন’র নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন বলেন, আমি ঘটনা শুনেছি এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি আরো বলেন, তদন্তকরে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *